بسم الله الرحمن الرحيم
اللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّدٍ وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ
আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ ঈদ এ মিলাদুন নবী ﷺ মুবারক Sunni Whatsapp Group Click : আমাদের সুন্নি বাংলা WhatsApp গ্রুপে যুক্ত হোন,আমাদের মুফতি হুজুরগণ আপনার ইসলামিক সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিবেন ইন শা আল্লাহ,জয়েন করতে ক্লিক করেন Sunni Bangla Whatsapp group আর Dui Bangla facebook group এবং Sunni Bangla facebook group মাসলাক এ আলা হজরত জিন্দাবাদ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত জিন্দা বাদ ৭৩ফিরকা ১টি হক পথে ।নবিﷺ এর প্রেমই ঈমান।ফরজ সুন্নাত তাসাউফ সূফীবাদ নফল ইবাদতের আরকান আহকাম সমুহ মাস'আলা মাসায়েল ইত্যাদি জানতে পারবেন।নবিﷺ সাহাবাرضي الله عنه ওলি গণের জীবনি ও অমুল্য বাণী জানতে পারবেন।মুসলিম জগতের সকল খবর ও ম্যাগাজিন পাবেন এখানেহাদিস শরীফ, কুর'আন শরীফ , ইজমা কিয়াস সম্বলিত বিশ্লেষণ, বাতিলদের মুখোশ উম্মচন করে প্রমাণ সহ দলীল ভিত্তিক আলোচনা ।জানতে পারবেন হক পথে কারা আর বাতিল পথে কারা জা'আল হক। বাংলাদেশ ও ভারতের সুন্নি আলিমদের বাংলায় নাত গজল ওয়াজ নসিহত অডিও ভিডিও ডাউনলোড করুন এখান থেকে অনলাইনে সুন্নি টিভি Live দেখতে আর রেডিও Live শুনতে পাবেন। প্রচুর সুন্নি বাংলা কিতাব ডাউনলোড করুন এখান থেকে।সুন্নি ইসলামিক কম্পিঊটার এপ্লিকেশন এন্ড্রইড এপ্স পাবেন এখানে। প্রতিদিন ভিজিট করুন প্রতিদিন নতুন বিষয় আপডেট পেতে ।ভিজিট করার জন্য ধন্যবাদ জাজাকাল্লাহু খায়ের ।

সাহাবা ব্যতীত অন্য কারো জন্য রাদিয়াল্লাহু আনহু বলা কেমন? ডাঃ মুহাম্মদ রাযা কাদেরী

সাহাবা ব্যতীত অন্য কারো জন্য রাদিয়াল্লাহু আনহু বলা কেমন? ডাঃ মুহাম্মদ রাযা কাদেরী

edited July 29 in Ja-al-haq
সাহাবা ব্যতীত অন্য কারো জন্য রাদিয়াল্লাহু আনহু বলা কেমন?
ডাঃ মুহাম্মদ রাযা কাদেরী

আমরা যখনই কোন আল্লাহর ওলির নামের সাথে যেমন 'আবু হানিফা রাদিয়াল্লাহু আনহু' 'আব্দুল কাদীর জিলানী রাদিয়াল্লাহু আনহু' 'আলা হজরত রাদিয়াল্লাহু আনহু' 'গুলাম আলী দাস্তেগীর রাদিয়াল্লাহু আনহু' ইত্যাদির ক্ষেত্রে 'রাদিয়াল্লাহু আনহু' কথাটি ব্যাবহার করি তখন কিছু অল্প শিক্ষিত মানুষ ও অলিদের দুশমণ বলে  'রাদিয়াল্লাহু আনহু' কেবলমাত্র সাহাবাদের ক্ষেত্রে ব্যাবহার করতে হয় তাছাড়া কারো ক্ষেত্রে ব্যাবহার করতে হয় না। তাদের কাছে আমার প্রশ্ন ভাই সহী হাদিস আর কুর'আন শরীফের কোথায় নিষেধ করা হয়েছে ? তখন এর উত্তরে তারা আর কিছু বলতে পারে না। আর বলবেই কি করে এর নিষেধ কোথাও নাই ,এই কথাগুলি নবী অলির দুষমণরা বিনা দলীলে প্রচার করে আর তার অনুসারীরা তোতা পাখির মত ঠোটস্থ করে নেই বিচার করে দেখার মত তাদের অবসর নাই। 
সাহাবা ব্যতীত অন্য কারো জন্য রাদিয়াল্লাহু আনহু বলা কেমন?
প্রিয় ইসলামী ভাইয়েরা! এ কথাটি সম্পূর্ণ ভুল যে, রাদিয়াল্লাহু আনহু শুধু সাহাবীর নামের সাথে নির্ধারিত। নিম্ন লিখিত আয়াতের শেষাংশ
রাদিয়াল্লাহু আনহু
সুরাঃ বায়্যিনাহ আয়াতঃ৮
{ جَزَآؤُهُمْ عِندَ رَبِّهِمْ جَنَّاتُ عَدْنٍ تَجْرِى مِنْ تَحْتِهَا ٱلأَنْهَارُ خَالِدِينَ فِيهَآ أَبَداً رِّضِىَ ٱللَّهُ عَنْهُمْ وَرَضُواْ عَنْهُ ذَلِكَ لِمَنْ خَشِيَ رَبَّهُ }
(অর্থাৎ আল্লাহ্‌ তাআলা তাদের উপর সন্তুষ্ট আর তারাও তাঁর উপর সন্তুষ্ট ) এটা তার জন্য, যে আপন মহামহিম আল্লাহ তাআলাকে ভয় করে।) ওই
সাধারণ লোকদের ভুল ধারণার মূলোৎপাটন করে দিয়েছে। আল্লাহ তাআলার ভয়
রাখেন এমন প্রতিটি মু’মিনের জন্য এ মহা সুসংবাদ অবতীর্ণ হয়েছে। যে কেউ
 আল্লাহকে ভয় করে, সে - রদিয়াল্লাহু আনহু এর  অন্তরভূক্ত।
এর মধ্যে সাহাবী ও সাহাবী নয় এমন কারো কথা বিশেষ করে বলা হয়নি।
প্রত্যেক সাহাবী ও প্রত্যেক ওলীর জন্য 
রদিয়াল্লাহু আনহু লিখা ও বলা একেবারে
সঠিক ও বৈধ। যিনি ঈমান সহকারে হুযুর সাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর প্রকাশ্য
জীবদ্দশায় একটা মুহুর্তের সঙ্গও লাভ করেছেন, কিংবা দেখেছেন, আর ঐ ঈমানের
উপর ইন্তেকাল করেছেন, তিনিই সাহাবী। বড় থেকে বড়তর ওলীও সাহাবীর
মর্যাদা পেতে পারেন না। প্রতিটি সাহাবী ন্যায়পরায়ণ ও অকাট্যভাবে জান্নাতী।
তাঁদের নামের সাথে যখন 
রদিয়াল্লাহু আনহু লিখা হবে, তখন অর্থ হবে ‘আল্লাহ
তাআলা তাঁর উপর সন্তুষ্ট— হয়েছেন।
আর যখন সাহাবী নন এমন কারো জন্য লিখা কিংবা বলা হবে, তখন দু‘আ সূচক
অর্থ হবে। অর্থাৎ “আল্লাহ তাআলা তাঁর প্রতি সন্তুষ্ট  হোন!”

সাহাবা ছাড়াও আল্লাহর ওলিদেরকে "রাদিয়াল্লাহু আনহু" বলা যাবে তার রিফারেন্স দেখুনঃ 
Durrul Mukhtar , Vol 5, page 480
Naseemur Riyadh,Vol 3,page 509
Ashi’at –ul-Lama’at, Vol 4 , page 743
 Rad Al- Muhtar, Vol 1 , Printed from Deoband , page 35, 36, 37 and page 42 , total six place
Tafsir Kabir, Vol 6 , page 382
Durr ul Mukhtar ,Vol 1 , page 45
Rad Al –Muhtar, Vol 1
Mirqat , Vol 1 , page 3. Bombay Edition
Tafsir Sawi , Vol 1 , page 3
Ihya uloom al deen , Vol 2 , page 7
Muqaddima , Fat’h ul bari , page 18 and page 21
Muqaddima , sharah Muslim , page 11
Ashi’at –ul-Lama’at, Vol 1 , page 16 and page 9
Naseemur Riyadh, page 5, Cairo Edition
Ashi’at –ul-Lama’at, Vol1 , page 18 and Akhbar al Akhiyar page 15.16, 18 21, 22, 23, 24 ,209, 210,211, 212,213,214
Mirqat, Vol 1 , page 27
Tafsir Sawi , Vol 1 , page 
Tafsir Kabir , Vol 8, page 460 , under 98:8

1501324950-picsay.jpg
640 x 640 - 125K
Sign In or Register to comment.
|Donate|Shifakhana|Board|All Sunni Site|EarnMB.in|